করোনায় আক্রান্ত প্রায় ৩ হাজার,১১ শতাংশ ছাড়িয়ে গেলো শনাক্তের হার

উদ্বেগজনক হারে বাড়ছে বাংলাদেশেও করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ। দীর্ঘদিন পর ৩য় দিনে দৈনিক করোনা ভাইরাসে শনাক্ত  রোগীর সংখ্যা ২ হাজার ছাড়িয়ে গেছে।

দেশে ২,৯১৬ জনের শরীরে করোনা ধরা পড়েছে গত ২৪ ঘণ্টায়।মোট শনাক্তের সংখ্যা এ নিয়ে দাঁড়িয়েছে ১৬ লক্ষ ১ হাজার ৩০৫ জনে। নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে দৈনিক শনাক্তের হার বেড়ে দাঁড়িয়েছে  ১১.৬৮ শতাংশে।

আজকে ১২ জানুয়ারি রোজ বুধবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরো ৪ জন মারা গেছেন। এই ভাইরাসটিতে এ নিয়ে দেশে এখন পর্যন্ত ২৮,১১১ জনের মৃত্যু হয়েছে।

গত ২৪ ঘন্টায় ২৪ হাজার ৯৬৪টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়।পরীক্ষার বিপরীতে দৈনিক শনাক্তের হার বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১১ দশমিক ৬৮ শতাংশে।গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ হয়েছেন ২৬৬ জন। এ নিয়ে মোট সুস্থ হলেন ১৫ লক্ষ ৫১হাজার ৬৫৩ জন।

গত বছরের ৮ মার্চ দেশে প্রথম ৩ জনের দেহে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ওই বছরের ১৮ মার্চ দেশে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়। চলতি বছরের ৫ ও ১০ আগস্ট দুদিন সর্বোচ্চ ২৬৪ জনের মৃত্যু হয়।

গত বছরের ৮ মার্চ দেশে করোনা ভাইরাসের প্রথম সংক্রমণ ধরা পড়েছিল । ১ম রোগী শনাক্তের ১০ দিন পর গত বছরের ১৮ মার্চ দেশে ১ম মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। সেই বছর সর্বোচ্চ মৃত্যু হয়েছিল ৬৪ জনের।

ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট ছড়িয়ে পড়ায় চলতি বছর জুন থেকে রোগীর সংখ্যা হু-হু করে বাড়তে থাকে। ২৮ জুলাই একদিনে সর্বোচ্চ ১৬ হাজার ২৩০ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছিল।

চলতি বছরের গত ৭ জুলাই প্রথমবারের মতো দেশে করোনায় মৃতের সংখ্যা ২০০ ছাড়িয়ে যায়। এর মধ্যে ৫ ও ১০ আগস্ট ২৬৪ জন করে মৃত্যু হয়, যা মহামারির মধ্যে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু। এরপর বেশকিছু দিন ২ শতাধিক মৃত্যু হয়।

এরপর মৃত্যুর সংখ্যা ২০০ এর নিচে নামা শুরু করে গত ১৩ আগস্ট । দীর্ঘদিন শতাধিক থাকার পর মৃত্যুর সংখ্যা ১০০ এর নিচে নেমে আসে গত ২৮ আগস্ট ।

২০২০ সালের এপ্রিলের পর চলতি বছরের ১৯ নভেম্বর প্রথম করোনা ভাইরাস মহামারিতে মৃত্যুহীন দিন পার করে বাংলাদেশ।সর্বশেষ দ্বিতীয়বারের মতো ৯ ডিসেম্বর মৃত্যুশূন্য দিন পার করেছে দেশ।

Facebook Notice for EU! You need to login to view and post FB Comments!

Check Also

শিক্ষামন্ত্রী দিপু মণি

করোনার সংক্রমণ শিশুদের মধ্যে বেড়ে যাওয়ায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের সিদ্ধান্ত

হঠাৎ করেই শিশুদের মধ্যে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার বলে …

জাহিদ মালিক

সব অফিস অর্ধেক উপস্থিতি নিয়ে চলবে,বাধ্যতামূলক ৫টি নির্দেশনা জারি

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ দ্রুত বাড়তে থাকায় আগামী দুই সপ্তাহ সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত হয়েছে …

আপনার মতামত জানান