কান ধরে উঠবস করার সময় ছাত্রী অজ্ঞান, প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে অভিযোগ

নরসিংদীর শিবপুর উপজেলার কামরাব উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও  কম্পিউটার অপারেটরের বিরুদ্ধে স্কুলে তিন দিন অনুপস্থিত থাকায়  ৬ষ্ঠ শ্রেণিতে অধ্যায়নরত এক ছাত্রীকে ৬১ বার কান ধরে উঠবস করানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে।

গত ১৭ সেপ্টেম্বর রোজ রোববার এ ঘটনা ঘটে।ছাত্রীর মামা মো. মহসিন মিয়া গত মঙ্গলবার শিবপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার বরাবর বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আখতারুজ্জামান ও কম্পিউটার অপারেটর আসিফের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করেন ।

লিখিত অভিযোগে তিনি উল্লেখ করেন, ‘কামরাব উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী অসুস্থতার কারণে তিন দিন স্কুলে অনুপস্থিত ছিল। গত ১৭ সেপ্টেম্বর প্রধান শিক্ষক আখতারুজ্জামানের নির্দেশে বিদ্যালয়ের কম্পিউটার অপারেটর আসিফ ৬ষ্ঠ শ্রেণির গণিত বিষয়ে পাঠদানের জন্য প্রবেশ করেন। ওই দিন আমার বোনের মেয়ে জ্বর অবস্থাতেই উপস্থিত হয়।

কিন্তু বিদ্যালয়ে তিন দিন অনুপস্থিত থাকার কারণে তাকে ২০০ বার কান ধরে উঠবস করতে বলেন কম্পিউটার অপারেটর আসিফ। উঠবস না করলে ১০ টাকা জরিমানা দিতে হবে জানান। সেই ভয়ে কান ধরে উঠবস শুরুর পরে ৬১তম বারে অজ্ঞান হয়ে পড়ে যায়।

পরবর্তীতে তার সহপাঠীরা মাথায় পানি ঢেলে জ্ঞান ফিরিয়ে আনে। তারপর সে বাড়ি চলে আসে।’ অভিযুক্তদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান তিনি।অভিযুক্ত কম্পিউটার অপারেটর আসিফ জয়নগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আলকাস মিয়ার ছেলে।

প্রধান শিক্ষক আখতারুজ্জামান বলেন, ‘ছাত্রীর মামা মঙ্গলবার রাত ১১টায় ফোনে বিষয়টি জানিয়েছেন। খোঁজ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মো. আলতাফ হোসেন জানান, কান ধরে উঠবস করানো ঠিক হয়নি। অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Check Also

এসএসসি পরীক্ষার্থী

২০২৪ সালের এসএসসি পরীক্ষার ভূয়া রুটিন, সতর্কতামূলক বিজ্ঞপ্তি জারি

মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকসহ বিভিন্ন অনলাইনে ছড়িয়ে পড়া এসএসসি-২০২৪ …

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেন

চাকরি দেওয়ার কথা বলে নেয়া ঘুষের টাকা গণশিক্ষামন্ত্রীর নির্দেশে ফেরত

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী এবং কুড়িগ্রাম-৪ আসনের এমপি জাকির হোসেনের নির্দেশে চাকরি দেওয়ার কথা বলে …

আপনার মতামত জানান