মাদরাসা শিক্ষার যে উন্নয়ন হয়েছে তা অতীতে কোন সরকারের সময়ে হয়নি

বর্তমান সরকারের সময়ে মাদরাসা শিক্ষার যে উন্নয়ন হয়েছে তা অতীতে কোন সরকারের সময়ে হয়নি বলে জানিয়েছেন শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল।

বাংলাদেশ জমিয়াতুল মোদার্রেছীন চট্টগ্রাম জেলা ও মহানগর শাখার উদ্যোগে এক শিক্ষক সমাবেশ আজ শনিবার প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন  মাদরাসা তথা দ্বীনি শিক্ষাকে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দিয়েছিলেন। তারই ধারাবাহিকতায় তারই সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এই শিক্ষার আধুনিকায়ন করা হচ্ছে।

সরকার বাংলাদেশের মাদরাসা শিক্ষাকে বিশ্বমানে উন্নীত করতে  কাজ করছেন ।

উপমন্ত্রী আরো বলেন, জমিয়াতুল মোদর্রেছীনের সাথে আমাদের প্রধানমন্ত্রীর আন্তরিক সম্পর্ক। আর এই কারণে তিনি পেশাজীবী এই সংগঠনের সব দাবি পূরণ করেছেন।

সমাবেশে প্রধান বক্তার বক্তব্যে বাংলাদেশ জমিয়াতুল মোদারের্ছীনের মহাসচিব অধ্যক্ষ আল্লামা শাব্বীর আহমদ মোমতাজী বলেন, জমিয়াতুল মোদার্রেছীনের সাথে এই দেশের সর্বস্তরের আলেম-উলামা, পীর মাশায়েখরা আছেন।

সরকারের সাথে এ অরাজনৈতিক পেশাজীবী সংগঠন সবসময় রয়েছেন।

আমাদের দাবি পূরণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসব সময় আন্তরিক।ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়, মাদরাসা অধিদপ্তর প্রতিষ্ঠাসহ মাদরাসা শিক্ষকদের বেতন বৈষম্য নিরসনসহ সবকিছুই তিনি করে দিয়েছেন।

মাদরাসা শিক্ষার বর্তমান যে উন্নয়ন হয়েছে তা আর কোন সরকারের সময়ে হয়নি।

সমাবেশে বাংলাদেশ জমিয়াতুল মোদারের্ছীনের বর্তমান সভাপতি আলহাজ এ এম এম বাহাউদ্দীনের নেতৃত্বে জমিয়াতুল মোদার্রেছীন যেকোন সময়ের চেয়ে শক্তিশালী উল্লেখ করে তারা বলেন, তার বলিষ্ট নেতৃত্বে এ সংগঠন আরও এগিয়ে যাবে।

মাদরাসা শিক্ষকদের অধিকার আদায়ের পাশাপাশি একটি নৈতিক সমাজ গঠনেও জমিয়াতুল মোদার্রেছীন কাজ করে যাচ্ছেন।

সমাবেশে প্রধান অতিথি ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল তার পিতা চট্টলবীর মরহুম এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী নগরীতে জমিয়াতুল মোদার্রেছীনের জন্য একটি অফিস নির্মাণ করে দেয়ার আশ্বাস দেন।

Facebook Notice for EU! You need to login to view and post FB Comments!

Check Also

দিপু মনি

এ মুহূর্তে স্কুল-কলেজে ক্লাসের সংখ্যা বাড়ানোর সুযোগ নেই-শিক্ষামন্ত্রী

শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে এবং সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করেই শিক্ষার্থীদের শ্রেণী কার্যক্রম পরিচালনা করতে হবে …

মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর

৩০ অক্টোবর থেকে শিক্ষার্থীদের কৃমিনাশক খাওয়ানো হবে

২৩ থেকে ২৯ অক্টোবর শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্যপরীক্ষা এবং ৩০ অক্টোবর থেকে ৫ নভেম্বর কৃমি নিয়ন্ত্রণ সপ্তাহ …

আপনার মতামত জানান